Home » টাইমপাস » চাটুকাররা আরও যা কিছু বিকৃতির অভিযোগ আনতে পারেন

চাটুকাররা আরও যা কিছু বিকৃতির অভিযোগ আনতে পারেন

নৌকা বিকৃতি

মাঝে মাঝে একটু আধটু বৃষ্টি নেমে শহরের রাস্তাঘাটে দুয়েক ফোঁটা পানি জমলেই দেখা যায় একদল নৌকা নিয়ে এসে হাজির হয়! শুধু তাই না, তারা রীতিমতো বৈঠা বেয়ে রাস্তার ওপর দিয়ে নৌকা চালায়! এটা কী ধরনের অসভ্যতা? নৌকা চলবে নদীতে কিংবা খালে বিলে। রাস্তার ওপর নৌকা চালানোর মানেটা কী? এখানে অবশ্যই নৌকাকে বিকৃতি করা হচ্ছে!

ডিজিটাল বিকৃতি

অনেক সময় রাস্তাঘাট কিংবা হাট-বাজারে বের হলেই দেখা যায় ভাংগাচোরা অনুন্নত কোনো দোকানের নাম দেয়া হয়েছে ডিজিটাল স্টুডিও কিংবা ডিজিটাল স্টোর বা এই জাতীয় কিছু। এটা কি এক ধরনের বিকৃতি নয়? তারা পেয়েছেটা কী? তারা কি ভেবেছে বাংলাদেশ কোনোদিনও ডিজিটাল দেশ হতে পারবে না? যদি তা না ভাবত, তাহলে কোনোদিনও তারা এসব অনুন্নত দোকানগুলো ডিজিটাল নামে নামকরণ করত না!

রাজনীতি বিকৃতি

গত ঈদে রাজনীতির মতো একটা সেনসিটিভ বিষয় নিয়ে রাজনীতি নাম দিয়ে একটা সিনেমা মুক্তি দেয়া হয়েছে! তারা কি ভেবেছে, আমাদের দেশের রাজনীতি মানসম্মত বা সুশৃঙ্খল নয়? এখানে নিশ্চয়ই আমাদের দেশের রাজনীতিকে বিকৃতি করে সিনেমার নাম রাজনীতি রাখা হয়েছে! এত বড় স্পর্ধা তাদের কে দিয়েছে? এরা কেউ দেশের রাজনীতিকে সম্মান করতে জানে না। সম্মান করলে কখনোই তারা রাজনীতির মতো একটা সেনসিটিভ নাম সিনেমায় দিতে পারত না!

সমুদ্রে পা ভেজানো বিকৃতি

দেশের অনেক পর্যটকদের দেখা যায়, তারা একদম জামা-কাপড় খুলে রেখে শুধুমাত্র ছোট্ট একটা বস্ত্র পরে সমুদ্র সৈকতে পা ভেজাতে নেমে যায়। তারা শুধু পা ভিজিয়েই ক্ষ্যান্ত হয় না, রীতিমতো সাঁতার শুরু করে দেয়! কেন, তোরা ভদ্রতার সঙ্গে জামা-কাপড় পরে পা ভেজানোর জন্য সমুদ্রে নামতে পারিস না? সবগুলো ফাজিলের দল! এরা নিশ্চয়ই আমাদের মাননীয় নেত্রীর সমুদ্রে পা ভেজানোকে বিকৃত করছে!

বখশিশ বিকৃতি

আমাদের চারপাশে অনেক লোকজন কিংবা কাপলদের দেখা যায় তারা কিছুক্ষণ রিকশায় ঘুরে টুরে আনন্দ উচ্ছ্বাস করেই রিকশাওয়ালাকে অত্ম কিছু টাকা বখশিশ দেয়। যার বেশিরভাগই মাত্র দশ থেকে বিশ টাকার মধ্যে সীমাবদ্ধ থাকে। এগুলো কি তারা এমনিতেই করে? নাহ! কক্ষনো না! তারা নিশ্চয়ই আমাদের মাননীয় নেত্রীর সেই ভ্যানে উঠে ভ্যানওয়ালাকে বখশিশ দেয়াটাকে বিকৃত করছে!

বিচার বিকৃতি

আজকাল ফেসবুকে মানুষজন একটা বাক্যকে ট্রেন্ড বানিয়ে ফেলেছে। যখন-তখন যেখানে-সেখানে তারা লিখে ফেলে এ কেমন বিচার? জায়গায় বেজায়গায় এই বাক্যটা লেখার কারণ কী? তারা কি ভেবেছে এ দেশের আদালতে সুষ্ঠু বিচার হয় না? আমাদের সরকার কি দেশের সব জায়গায় সুষ্ঠু বিচার করতে সর্বদা প্রতিজ্ঞাবদ্ধ নয়? তাহলে কেন যেখানে-সেখানে এ কেমন বিচার? লিখে আমাদের সরকারের বিচার কার্যকে বিকৃত করা হবে? কেন? আমরা এর জবাব চাই! সেই সঙ্গে বিচার চাই! করতে হবে!

source:jugantor.com

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *