Home » Top 10 » ধর্ষিতার নবজাতকের দায়িত্ব নিলো প্রশাসন

ধর্ষিতার নবজাতকের দায়িত্ব নিলো প্রশাসন

গাজীপুরের শ্রীপুরের ধর্ষিতা কিশোরীর জন্ম নেয়া নবজাতকের দায়িত্ব নিয়েছে উপজেলা প্রশাসন। শ্রীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের প্রসূতি পর্ষবেক্ষণ কক্ষের ২৮ নম্বর ওয়ার্ডে স্বাভাবিকভাবে রাত সাড়ে ১১টার দিকে সন্তান প্রসব করে ধর্ষিতা ওই কিশোরী। মা ও  নবজাতক উভয়েই সুস্থ ও আশঙ্কা মুক্ত রয়েছে। এ তথ্য নিশ্চিত করেন শ্রীপুর উপজেলা পরিবার ও পরিকল্পনা কর্মকর্তা মো.মঈনুল হক খান। কিশোরীর স্বজনরা জানান, গত বুধবার সন্ধ্যায় কিশোরীর প্রসব বেদনা উঠলে তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করানো হয়। সেখানে ধর্ষিতা কিশোরীর ফুটফুটে একটি কন্যা সন্তানের জন্ম নেয়।

ডা. মো. মঈনুল হক খান বলেন, প্রশাসনের পক্ষ থেকে কিশোরীর সব রকমের চিকিৎসার দায়িত্ব থাকায় স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক চিকিৎসক হাবিবা সুলতানার অধীনে স্বাভাবিক কন্যা সন্তান প্রসব করে সে।
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) রেহেনা আকতার জানান, সন্তান প্রসবের পর রাতেই নবজাতক ও কিশোরীকে দেখতে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে যান তিনি। সেখানে উপস্থিত কিশোরীর পরিবারকে নিশ্চিত করেন নবজাতকের ও তাঁর মায়ের সকল দায়িত্ব নিয়েছে জেলা প্রশাসক ড. দেওয়ান মুহাম্মদ হুমায়ুন কবির। সরকারী ভাবে তাদের সব রকম চিকিৎসার জন্যও হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।
উল্লেখ্য, গত ২২শে সেপ্টেম্বর ধর্ষণে শিকার কিশোরীর অন্তঃসত্ত্বার ঘটনায় শ্রীপুর থানায় তেলিহাটি ইউনিয়নের সাইটালিয়া গ্রামের নুরু মিয়ার ছেলে আমান উল্লাহ (২৫) কে আসামী করে শ্রীপুর থানায় মামলা করা হয়। উক্ত মামলার মূল আসামী অভিযুক্ত আমান উল্লাহকে এখনো পুলিশ গ্রেপ্তার করতে পারেনি। এ ঘটনায় সর্ম্পৃকততা থাকায় আরেক আসামী সাইটালিয়া গ্রামের আবুল হোসেনের ছেলে হুমায়ুনকে  গত ১৯ নভেম্বর গ্রেপ্তার করে পুলিশ। 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *