শিরোনাম
Home » অন্যান্য » ২৩ ঘণ্টা রোজা যেখানে,(সূর্য অস্ত যাওয়ার পর ৫৫ মিনিট পরেই আবার সূর্যোদয় হয়)

২৩ ঘণ্টা রোজা যেখানে,(সূর্য অস্ত যাওয়ার পর ৫৫ মিনিট পরেই আবার সূর্যোদয় হয়)

ভৌগলিক অবস্থানের কারণে বিশ্বে সবচেয়ে বেশি সময় পবিত্র রোজা রাখতে হয় ফিনল্যান্ডের ল্যাপল্যান্ড এলাকার মানুষদের। সেখানে সূর্য অস্ত যাওয়ার পর ৫৫ মিনিট পরেই আবার সূর্যোদয় হয়। ফলে সেখানকার মুসলিমদের রোজা পালন করতে হয় ২৩ ঘন্টা ৫ মিনিট। এটাই সবচেয়ে বেশি সময় পালন করা রোজা। তবে ক্ষেত্র বিশেষে এলাকা ভেদে বা দেশের অবস্থানের কারণে কোন কোন দেশে এই রোজার ব্যাপ্তিকাল ৯ ঘণ্টার মতো। এ খবর দিয়েছে সৌদি আরবের অনলাইন সৌদি গেজেট। এতে বলা হয়, বিশ্বের মোট জনসংখ্যা ১৬০০ কোটি। এর শতকরা ২২ ভাগ পবিত্র রোজা পালন করার কথা। বিভিন্ন দেশে এই রোজার সময় ভিন্ন ভিন্ন। সৌদি আরবের বেশির ভাগ এলাকায় মুসলিমরা রোজা রাখেন ১৫ ঘন্টা। আর্জেন্টিনার ওচায়া অঞ্চলের মুসলিরা রোজা রাখেন ৯ ঘণ্টার কিছু বেশি। অর্থাৎ সেখানে দিনের ব্যাপ্তি ৯ ঘণ্টার সামান্য বেশি। তবে সবচেয়ে বেশি সময় রোজা থাকতে হয় ফিনল্যান্ডের ওই ল্যাপল্যান্ড এলাকার মুসলিমদের। আগেই বলা হয়েছে, সেখানে সূর্য ডোবার পর ৫৫ মিনিট পরেই আবার সুর্যোদয় হয়। স্ক্যান্ডিনেভিয়ান দেশগুলোতে গড়ে রোজা রাখতে হয় ২০ ঘণ্টার মতো। আইসল্যান্ড ও গ্রিনল্যান্ডে মুসলিমরা রোজা রাখেন প্রায় ২১ ঘন্টা। তবে গত বছর একটি ফতোয়া দেয়া হয়। তাতে প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চল ও নরওয়ের উত্তরাঞ্চলের মানুষদের বলা হয় মক্কা অথবা নিকটবর্তী কোন একটি মুসলিম দেশের রোজার ব্যাপ্তির সঙ্গে মিলিয়ে রোজা রাখতে। নরওয়েতে রোজা পালন করতে হয় প্রায় ১৯ ঘণ্টা। তবে বৃটেনের মুসলিমদের এক্ষেত্রে এক ঘণ্টা কম অর্থাৎ ১৮ ঘণ্টা রোজা রাখতে হয়। কানাডায় এ সময় প্রায় ১৭ ঘণ্টা। অস্ট্রেলিয়ার সিডনিতে রোজার সময় প্রায় ১১ ঘণ্টা ৩৫ মিনিট।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *