Home » Top 10 » বিশ্বজয়ী হাফেজ তরিকুল ইসলামকে খালেদা জিয়ার সংবর্ধনা

বিশ্বজয়ী হাফেজ তরিকুল ইসলামকে খালেদা জিয়ার সংবর্ধনা

সংযুক্ত আরব আমিরাতের দুবাইয়ে অনুষ্ঠিত আন্তর্জাতিক পবিত্র কোরআন প্রতিযোগিতায় প্রথম স্থান অধিকারকারী বাংলাদেশি কিশোর হাফেজ মোহাম্মদ তারিকুল ইসলামকে সংবর্ধনা দিয়েছেন বিএনপির চেয়ারপারসন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম বেগম খালেদা জিয়া।

রবিবার রাতে গুলশানস্থ চেয়ারপারসনের রাজনৈতিক কার্যালয়ে কিশোর মোহাম্মদ তারিকুল ইসলামের হাতে নগদ এক লক্ষ টাকা ও কিছু উপহার সামগ্রী তুলে দেন। এসময় বেগম জিয়া তার সাফল্য কামনা করে বলেন, হাফেজ তরিকুলের এই অর্জন বাংলাদেশকে গৌরবান্বিত করেছে। খালেদা জিয়া তরিকুলের সাথে কথা বলেন ও তার খোঁজ খবর নেন। এসময় তরিকুল বেগম খালেদা জিয়াকে ফুলের স্তবক দিয়ে শুভেচ্ছা জানান।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য ড; খন্দকার মোশাররফ হোসেন, আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী, ঢাকা মহানগর বিএনপির সভাপতি ও বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব হাবিব উন নবী খান সোহেল, বিএনপি চেয়ারপারসনের বিশেষ সহকারী শামসুর রহমান শিমুল বিশ্বাস, এমরান সালেহ প্রিন্স, শহিদুল ইসলাম বাবুল, যুবদলের সভাপতি সাইফুল ইসলাম নীরব, সাধারণ সম্পাদক সুলতান সালাউদ্দিন টুকু, আমিরুজ্জামান খান শিমুল, মুন্সি বজলুল বাসিত, সামসুজ্জামান সুরুজ প্রমুখ।

আরো উপস্থিত ছিলেন তারিকুল ইসলামের শিক্ষক হাফেজ কারী নেছার আহমদ আনসারী, হাফেজ মাওলানা কারী রহমতুল্লাহ, বিএনপির ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক বদরুজ্জামান খসরু, ওলামা দলের সভাপতি হাফেজ আব্দুল মালেক, সাধারণ সম্পাদক অধক্ষ মাওলানা শাহ নেছারুল হক।

উল্লেখ্য, বাংলাদেশি কিশোর হাফেজে কুরআন তরিকুল ইসলাম দুবাইয়ে অনুষ্ঠিত ২১তম আন্তর্জাতিক হলি কুরআন অ্যাওয়ার্ড প্রতিযোগিতায় ১০৩টি দেশের প্রতিযোগীকে পেছনে ফেলে প্রথম স্থান অর্জন করেন। বৃহস্পতিবার পুরস্কার হিসেবে তার হাতে বাংলাদেশি ৬০ লাখ টাকার সম-পরিমাণ অর্থ এবং সম্মাননা ক্রেস্ট তুলে দেন দুবাইয়ের শাসক শেখ আহমাদ বিন রাশেদ আল মাখতুম। হাফেজ তরিকুল ইসলাম হাফেজ কারি নেছার আহমাদ আন নাছিরী পরিচালিত যাত্রাবাড়ীর মারকাজুত তাহফিজ ইন্টারন্যাশনাল মাদরাসার ছাত্র। অনুষ্ঠনে সৌদি আরবের বাদশাহ সালমান বিন আবদুল আজিজের পক্ষে বক্তৃতা করেন মক্কার গভর্নর শেখ আহমদ বিন আব্দুল আজিজ বিন আলী শেখ, ইমাম ড. আব্দুলাহ আলী বাসপারসহ মিসর, বাহরাইন, ইয়েমেনসহ বিভিন্ন দেশের আমন্ত্রিত অতিথিরা। অনুষ্ঠানে বিচারক হিসেবে ছিলেন মিসর, বাহরাইন, সৌদি আরব, দুবাই ইয়েমেনসহ বিভিন্ন দেশের বিখ্যাত হাফেজ ও কারিরা। হাফেজ তরিকুলের এ বিজয় মধ্যপ্রাচ্যসহ আরব বিশ্বের মিডিয়ায় ব্যাপক সাড়া ফেলেছে। গালফ নিউজসহ বিভিন্ন মিডিয়ায় তাকে নিয়ে স্পেশাল রিপোর্ট প্রকাশ করা হয়েছে। সেখানে বাংলাদেশি ১৩ বছরের কিশোর হাফেজের কৃতিত্বকে বিস্ময়কর হিসেবে তুলে ধরা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *