Home » বিনোদন » জলসা ঘর » ‘দুই দিক সামলানোটা কঠিন হয়ে পড়ছে’

‘দুই দিক সামলানোটা কঠিন হয়ে পড়ছে’

দেশের জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী নাজমুন মুনিরা ন্যান্সি। ক্যারিয়ারের শুরু থেকেই সফলতা পেয়ে আসছেন চলচ্চিত্রের গানের মাধ্যমে। ধারাবাহিকভাবে তার করার অনেক গানই জনপ্রিয়ত পেয়েছে। প্লেব্যাকের একটি নির্ভরযোগ্য কন্ঠ হিসেবে শক্ত অবস্থান গড়েছেন তিনি আরো আগেই। অডিও অ্যালবামেও ন্যান্সির চাহিদা অন্য অনেকের চাইতে বেশি। সম্মানির দিক দিয়েও এগিয়ে তিনি। অ্যালবাম ও প্লেব্যাকের বাইরে স্টেজ শো নিয়মিত করেন ন্যান্সি। সব মিলিয়ে চলতি সময়টা কেমন কাটছে? উত্তরে ন্যান্সি বলেন, ভালো। তবে ময়মনসিং টু ঢাকা আর ঢাকা টু ময়মনসিং যাতায়াত করে খানিকটা ক্লান্ত। ময়মনসিংহে আমার স্বামী জায়েদ চাকুরী করছেন। আর এখানে বাড়িও করেছি আমি। অন্যদিকে ঢাকায় বাসা ভাড়া করা রয়েছে। রেকর্ডিং থাকলে সেখানে যাই। তবে সব মিলিয়ে মেইনটেইন করাটা এখন একটু কঠিন হয়ে পড়েছে। তাহলে কি করবেন? ন্যান্সি বলেন, কিছুতো করার নেই। এভাবেই চলতে হবে। ছোট মেয়টাকে স্কুলে ভর্তি করবো সামনে। তখনতো আরো খারাপ অবস্থা হবে। দুই জায়গায় থাকতে হচ্ছে। তাই দুই দিক সামলানোটা কঠিন হয়ে পড়ছে। সংসার ও বাচ্চাদের পড়াশোনাসহ তাদের দেখাশোনা করার পর গান করাটা বেশ কষ্টের। তারপরও ট্রাই করছি। কারণ গানতো আর ছাড়তে পারবো না। এখন কি আপনি ঢাকায়? ন্যান্সি বলেন, আজই ঢাকায় আসলাম। কাল আবার চট্রগ্রামে যাবে। সেখানে শো রয়েছে। তারপর ঢাকায় ফিরে কিছুদিন থাকবো। এর মধ্যে নতুন গানের কি খবর? ন্যান্সি বলেন, নতুন গান হচ্ছে। মিশ্র অ্যালবামে গেয়েছি কিছু। তাছাড়া সংগীতা থেকে একটি ইপি অ্যালবাম আসার কথা রয়েছে ঈদে। সাউন্ডটেক থেকেও একটি অ্যালবামের কাজ চলছে। সিঙ্গেল করার অনেক প্রস্তাব আছে। কিন্তু তা করতে চাই না। অনেকেইতো এ সময় সিঙ্গেল করছেন। আপনি কেন করতে চাইছেন না? ন্যান্সি বলেন, দেখুন আমি কিন্তু স্টেজনির্ভর শিল্পী না। কারণ আমি অনেক শো করতে পারি না। একটু বেছে বেছে শো করি। সিনেমার গানই কিন্তু আমার মূল জায়গা। অনেক গানই শ্রোতারা পছন্দ করেছেন। অ্যালবামের ক্ষেত্রেও তাই। আমি বাড়ি করেছি রেকর্ডিংয়ের সম্মানি দিয়েই। এটা আমার গর্ববোধের জায়গা। সিঙ্গেল মানে একটি গান। আগে একটি অ্যালবামে ৮-৯ টি গান থাকতো। এরপর ইপি অ্যালবাম এলো। সেখানে ৩টি গান নিয়ে অ্যালবাম হতো। এ পর্যন্ত ঠিক আছে। কিন্তু সিঙ্গেল মানে একটি গান। আমার মনে হয় এটা একটা বেড আইডিয়া। যেহুতু আমি রেকর্ডিং এর উপর নির্ভর। তাই একটি গান করতে চাই না। একটি গান করলে কিন্তু একক অ্যালবামের মতোই প্রচারণা হচ্ছে। আমি পেশাগত দিক বিবেচনা করলে এই এক গান দিয়ে আমার চলবে না। এ কারণেই অনেক সিঙ্গেল এর প্রস্তাব ফিরিয়ে দিয়েছি। করলে তিন গান নিয়ে ইপি করবো কিন্তু সিঙ্গেল নয়। কিন্তু আপনার সমসাময়িক অনেকেই তো সিঙ্গেল করছে? ন্যান্সি বলেন, অনেকেই নিজে গান করে নিজের চ্যানেলে আপলোড করছে। ইউটিউব থেকে অনেক সময় বিনিয়োগের অর্থ উঠে আসছে। কিন্তু আমি আসলে ওভাবে চিন্তা করিনি এখনও। অনেকেই আমাকে ইউটিউবে চ্যানেল করার কথা বলেছেন। কিন্তু এ ব্যাপারে এখনও ভাবিনি। দেখা যাক সামনে কি হয়। প্লেব্যাকের কি খবর? ন্যান্সি বলেন, প্লেব্যাকের ব্যস্ততা কমছে বলে মনে হচ্ছে। আর সবার কথা জানি না। তবে সিনেমার গানের ব্যস্ততা এই মুহূর্তে কম। এর কারণ আমি জানি না। হয়তো সময়ের কারণে। এবার ভিন্ন প্রসঙ্গে আসি। সংসার চলছে কেমন? ন্যান্সি বলেন, বেশ ভালো চলছে। ব্যস্ততার মধ্যে দিয়ে কাটছে। তবে ভালো।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *