Home » খেলাধুলা » অন্যান্য খেলাধুলা » বিসিবির সভাপতি পদে থাকতে চান না পাপন

বিসিবির সভাপতি পদে থাকতে চান না পাপন

তিনি একাধারে সরকারি দলের সংসদ সদস্য, বেক্সিমকো ফার্মার বড় ওষুধ প্রস্তুত এবং বাজারজাতকরণ সংস্থার অন্যতম শীর্ষ কর্তা। পাশাপাশি বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের সভাপতি। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কিশোরগঞ্জ-৬ আসনের সংসদ সদস্য হিসেবে নিয়মিতই নির্বাচনী এলাকায় যেতে হয়। এলাকার গণ মানুষের নেতা হিসেবে নানা উন্নয়ন কর্মকাণ্ড পরিচালনার পাশাপাশি এলাকার মানুষজনের কাছে প্রায়ই ছুটে যেতে হয়। সময় দিতে হয় বেক্সিমকোতে। ক্রিকেট বোর্ডের দায়িত্বের কথাতো সকলের জানা। তিনটি দায়িত্ব একাধারে পালন করতে করতে হাঁপিয়ে উঠেছেন নাজমুল হাসান পাপন। বার কয়েক বলেছেন, এক সঙ্গে কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব্ব পালন করতে গিয়ে সমস্যা হচ্ছে। একটি বড় পদ ছেড়ে দিতে পারি। সেটা যে বিসিবি প্রধানের পদ তা পরিষ্কার করে না বলায় বিষয়টাকে গুঞ্জনই ভাবা হচ্ছিল। কিন্তু এখন আর বিষয়টি গুজব ভাবার কোনোই কারণ নেই। নাজমুল হাসান পাপন এবার সত্যিই বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড সভাপতির পদ ছেড়ে দিচ্ছেন! এবার নিজ মুখে বিসিবি প্রধানের পদ থেকে সরে দাঁড়ানোর ইচ্ছা প্রকাশ করেছেন তিনি।
গতকাল তার মাতা সাবেক আওয়ামী লীগ নেত্রী আইভী রহমানের স্মরণ সভায় উপস্থিত সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপে অনেক কথার ভিড়ে এক পর্যায়ে বিসিবি সভাপতি না থাকার কথা জানিয়ে নাজমুল হাসান পাপন বলেন, ‘আমি আর বিসিবি সভাপতি পদে থাকতে চাই না।’ তবে কেন এ পদে থাকতে চান না তার বিস্তারিত ব্যাখ্যায় না গিয়ে পাপন বলেন ‘আসলে এক সঙ্গে কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ পদে আছি। তাই পুরোপুরি দায়িত্ব পালন করতে পারছি না। সে কারণেই আগামীতে বিসিবি প্রধানের পদ থেকে সরে দাঁড়াতে চাই।’ এদিকে সব ঠিক থাকলে আগামী মাসে বিসিবির এজিএম ইজিএম। নির্বাচনের ডামাডোলও বাজছে। এ সময় নাজমুল হাসান পাপনের বোর্ড প্রধান পদ থেকে সরে দাঁড়ানোর ইচ্ছে প্রকাশ নতুন মাত্রা যোগ হয়েছে বিসিবির নির্বাচনকে ঘিরে। বলার অপেক্ষা রাখে না, বর্তমান বোর্ডে নাজমুল হাসান পাপনের অবস্থান প্রায় শতভাগ সুসংহত। বর্তমান পরিচালক পর্ষদে তার জনপ্রিয়তা সর্বোচ্চ। তার প্রতিদ্বন্দ্বীও নেই। সবাই নাজমুল হাসান পাপনের নেতৃত্বের প্রতি অবিচল আস্থা রাখেন। এরকম জনপ্রিয়তার তুঙ্গে থাকা অবস্থায় শুধু দায়িত্ব শতভাগ পালন করতে পারবেন না এমন অজুহাতে তার বিসিবি প্রধানের পদ থেকে সরে দাঁড়ানোর ইচ্ছে প্রকাশ নানা প্রশ্নের জন্ম দিচ্ছে। বোর্ডের নির্ভরযোগ্য এক সূত্র আভাস দিয়েছে, নাজমুল হাসান পাপন বিশ্ব ক্রিকেটের সর্বোচ্চ সংস্থা আইসিসির সঙ্গে সম্পৃক্ত হতে যাচ্ছেন। সম্ভবত আ হ ম মোস্তফা কামালের মতো নাজমুল হাসান পাপনও ক্রিকেটের সর্বোচ্চ সংস্থা আইসিসির শীর্ষ পদে আগ্রহী। আইসিসির নিয়ম ও রীতি অনুযায়ী সভাপতি হওয়ার আগে দুই বছর সহ-সভাপতি পদে থাকতে হয়। একটি নির্ভরযোগ্য সূত্র জানিয়েছে, নাজমুল হাসান পাপন আইসিসির পরবর্তী সহ-সভাপতি হতে চাচ্ছেন। তবে এ বিষয়ে পাপন এখনো নিজে কিছু বলেননি।
আইসিসির প্রচলিত নিয়ম অনুযায়ী সহ-সভাপতি বা সভাপতি হতে হলে কোনো দেশের বোর্ডের শীর্ষ পদে থাকা যাবে না। অর্থাৎ বিসিবি সভাপতি পদে থেকে আইসিসির বড় পদ লাভের কোনোই সুযোগ ও সম্ভাবনা নেই। তাই হয়তো আগে ভাগেই বিসিবি প্রধান পদ থেকে সরে দাঁড়ানোর চিন্তা ভাবনা পাপনের।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *