Home » বিশ্ব » যুক্তরাষ্ট্রে প্রেসিডেন্ট নির্বাচন- দৃষ্টি এখন ট্রাম্প-বাইডেনের ওপর

যুক্তরাষ্ট্রে প্রেসিডেন্ট নির্বাচন- দৃষ্টি এখন ট্রাম্প-বাইডেনের ওপর

নিকি হ্যালি প্রতিদ্বন্দ্বিতায় টিকে থাকলেও আগামী প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে এখন দৃষ্টি পড়েছে দু’জনের ওপর। তারা হলেন সাবেক প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্প ও বর্তমান প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। প্রথমজন রিপাবলিকান দলের। দ্বিতীয়জন ডেমোক্রেট। দু’জনেরই বয়স অনেক বেশি। তা সত্ত্বেও তারা যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে নিজ নিজ দলের মনোনয়ন পাবেন বলে অনেকটা নিশ্চিত হওয়া গেছে। এ খবর দিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স।
আইওয়া ককাস ও নিউ হ্যাম্পশায়ারে প্রাইমারিতে ব্যাপক ব্যবধানে দলীয় প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীদের পরাজিত করায় অনেকটাই নিশ্চিত যে, ট্রাম্পই হতে যাচ্ছেন রিপাবলিকান দলের আগামী প্রেসিডেন্ট পদের প্রার্থী। তবে এক্ষেত্রে যদি আদালত তাকে মামলার মারপ্যাচে অযোগ্য ঘোষণা করে তাহলে ভিন্ন কথা। দলীয় মনোনয়ন পাওয়ার লড়াইয়ে শেষ পর্যন্ত তার সঙ্গে টিকে আছেন জাতিসংঘে যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক রাষ্ট্রদূত নিকি হ্যালি। বাকিরা আস্তে আস্তে ঝরে গেছেন।
ট্রাম্পের এবং জো বাইডেনের মনোনয়ন দৃশ্যত নিশ্চয়তার পথে এগিয়ে যাওয়ার পর পরই তারা একে অন্যকে আক্রমণ করা শুরু করেছেন। মঙ্গলবার নিউ হ্যাম্পশায়ারে নিকি হ্যালিকে ট্রাম্প পরাজিত করার পর বাইডেনের নির্বাচন শিবির থেকে একটি বিবৃতি দেয়া হয়েছে। তাতে বলা হয়েছে, ট্রাম্প যে রিপাবলিকান দলের মনোনীত প্রার্থী হতে পারবেন তা এখনও নিশ্চিত নয়।
তারা বার বার সতর্কবার্তা দিচ্ছে যে, সাবেক প্রেসিডেন্ট (ট্রাম্প) গণতন্ত্রের জন্য হুমকি। অন্যদিকে ট্রাম্প তার নিজের সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ট্রুথ সোশ্যালে বার বার বলছেন, তার বিরুদ্ধে অপ্রমাণিত অভিযোগ আনা হয়েছে। জো বাইডেন এবং তার আইন মন্ত্রণালয় ট্রাম্পকে রাজনৈতিকভাবে বিচার করায় লিপ্ত বলে তিনি মন্তব্য করেন। বিশেষ করে গত বছর ট্রাম্পকে বেশ কতগুলো ফৌজদারি মামলায় অভিযুক্ত করার পর এমন অবস্থান জোরালো করেছে ট্রাম্প শিবির।
আইওয়া ককাস এবং নিউ হ্যাম্পশায়ারে নিকি হ্যালি হেরে গেলেও তিনি লড়াইয়ে টিকে থাকার প্রত্যয় ঘোষণা করেছেন। আগামী ২৪শে ফেব্রুয়ারি সাউথ ক্যারোলাইনায় রিপাবলিকান দলের প্রাইমারি নির্বাচন। সেই নির্বাচন এবং তার পরের প্রাইমারি নির্বাচনেও টিকে থাকার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন তিনি। কয়েক মাস ধরে যুক্তরাষ্ট্রের সব রাজ্যে মনোনয়নের এই প্রাইমারি নির্বাচন হবে। এতে নিকি হ্যালিকে খুব সহজেই পরাজিত করবেন এবং দলীয় মনোনয়ন ট্রাম্পই দ্রুততার সঙ্গে পেয়ে যাবেন বলে মনে হচ্ছে।
২৪ শে ফেব্রুয়ারি সাউথ ক্যারোলাইনাতে প্রাইমারি নির্বাচন। এটি নিকি হ্যালির নিজের রাজ্য। সেখানে ৫২ বছর বয়সী নিকি হ্যালিকে বিব্রতকর অবস্থায় ফেলতে চান ৭৭ বছর বয়সী ট্রাম্প। এই রাজ্য থেকে দু’বার গভর্নর নির্বাচিত হয়েছেন নিকি হ্যালি। এখানে তার ভোটারদের অনুরোধ জানিয়েছেন একটি আপসেট ঘটিয়ে দিতে। অর্থাৎ ট্রাম্পকে পরাজিত করতে। সামনের দিনগুলোতে নিকি হ্যালি তার রাজ্যে তিনটি র‌্যালি করবেন। ৪০ লাখ ডলার খরচ করে নতুন দুটি নির্বাচনী বিজ্ঞাপন প্রচার করছেন তিনি। এর একটি বিজ্ঞাপনে প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনকে বেশি বুড়ো বলে আখ্যায়িত করেছেন। অন্যদিকে ট্রাম্পকে আখ্যায়িত করেছেন খুব বেশি বিশৃঙ্খলা সৃষ্টিকারী হিসেবে। অন্য বিজ্ঞাপনে তিনি ২০১১ সাল থেকে ২০১৭ সাল পর্যন্ত গভর্নর থাকাকালে হাজার হাজার কর্মক্ষেত্র, কম ট্যাক্স, অভিবাসন বিষয়ক কঠোর আইন করার কথা উল্লেখ করেছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *