Home » বিশ্ব » মিটিংয়ের আগে পিটিআইয়ের অফিস ঘেরাও করে রাখার অভিযোগ

মিটিংয়ের আগে পিটিআইয়ের অফিস ঘেরাও করে রাখার অভিযোগ

সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের দল পাকিস্তান তেহরিকে ইনসাফের (পিটিআই) পরিচালনা পরিষদের মিটিংয়ের ঠিক আগে আগে বুধবার দলটির ইসলামাবাদ অফিস ঘেরাও করে রাখে পুলিশ ও নিরাপত্তা রক্ষাকারীরা। ইসলামাবাদ জি-৮ সেক্টরে অবস্থিত ওই কেন্দ্রীয় কার্যালয়কে সাদা পোশাকের এসব বাহিনীর সদস্যরা ঘেরাও করে রাখে। তারা দলের কোনো সদস্যকে ভিতরে প্রবেশে বাধা দেয়। তাদেরকে সতর্ক করে বলে- ভিতরে প্রবেশ করলে করুণ পরিণতি ভোগ করতে হবে। এর ফলে পিটিআইয়ের পরিচালনা পরিষদ অনলাইনে ভার্চ্যুয়াল মিটিং করে। এ খবর দিয়েছে অনলাইন ডন।
আর মাত্র ৬ দিন পরে ৮ই ফেব্রুয়ারি পাকিস্তানে জাতীয় ও প্রাদেশিক পরিষদে নির্বাচন। এই নির্বাচনকে কেন্দ্র করে রাজনীতি সরগরম। কিন্তু ইমরান খানের পিটিআই নানা রকম প্রতিবন্ধকতার মুখে। দলীয় চেয়ারম্যান ইমরানকে জেল দেয়া হয়েছে। প্রথমে তোষাখানা মামলায়, পরে কূটনৈতিক বার্তা ফাঁস করা মামলায় যথাক্রমে ১০ ও ১৪ বছর করে জেল দেয়া হয়েছে তাকে।
কেড়ে নেয়া হয়েছে দলীয় প্রতীক ক্রিকেট ব্যাট। ফলে তার দলের প্রার্থীরা নির্বাচন করছেন স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে। এ জন্য প্রার্থীদের অভিন্ন কোনো প্রতীক থাকছে না। তারা ভিন্ন ভিন্ন প্রতীকে নির্বাচন করছেন। এমন জটিলতায় ভোটাররা অনেকেই শনাক্ত করতে পারবেন না যে, ইমরান খানের প্রার্থী কে। তার ওপর দলীয় কার্যালয় সাদা পোশাকের পুলিশ, নিরাপত্তা রক্ষাকারীদের ঘিরে রাখার খবর এলো সর্বশেষ।
তবে ইসলামাবাদ পুলিশ পিটিআইয়ের কার্যালয় ঘেরাও করে রাখার অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করেছে। তারা বলেছে, একজন ম্যাজিস্ট্রেটের অনুমতি ছাড়া কোনো কার্যালয়ে তল্লাশি চালানো যায় না। বুধবার ওই রকম কোনো নির্দেশ ইস্যু করা হয়নি। নাম প্রকাশ না করে একজন সদস্য বলেন, তারা সেখানে গিয়েছিলেন নিরাপত্তা দিতে। যেহেতু ইমরান খান ও বুশরা বিবির বিরুদ্ধে বুধবারই অন্য একটি মামলার রায় ঘোষণা করা হয়েছে, তাই প্রতিবাদ বিক্ষোভ হওয়ার আশঙ্কা ছিল। পুলিশ পিটিআইয়ের অফিসের ভিতরে প্রবেশ করেনি। তারা এর বাইরে অবস্থান নিয়েছিল।

ওদিকে অনলাইন মিটিংয়ে দলীয় প্রধান নির্বাচনী কর্মকর্তা হিসেবে ওমর আইয়ুবকে মনোনীত করেছে পিটিআইয়ের পরিচালনা পরিষদ। দলের ভিতরের নির্বাচনের বিষয়েও তাকে ক্ষমতা দেয়া হয়েছে। দলটি তাদের প্রধান নির্বাচন কমিশনার বাছাই করেছে রউফ হাসানকে। তার সঙ্গে প্রতিটি প্রদেশ এবং গিলগিট বালতিস্তানের একজন করে সদস্য থাকবেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *