Home » অন্যান্য » মালয়েশিয়ায় প্রবাসী বাংলাদেশিদের জন্য ই-পাসপোর্ট কার্যক্রম শুরু

মালয়েশিয়ায় প্রবাসী বাংলাদেশিদের জন্য ই-পাসপোর্ট কার্যক্রম শুরু

দীর্ঘ প্রতীক্ষার পর অবশেষে মালয়েশিয়ায় প্রবাসী বাংলাদেশিদের জন্য ই-পাসপোর্ট কার্যক্রম শুরু হলো। বৃহস্পতিবার নবজাতক শিশুর ইনরোলমেন্টের মাধ্যমে ই-পাসপোর্টের কার্যক্রম উদ্বোধন করেন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সুরক্ষা সেবা বিভাগের সচিব মো. আব্দুল্লাহ আল মাসুদ চৌধুরী। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন হাইকমিশনার- হাইকমিশন কুয়ালামপুর মালেশিয়া, মো. শামিম আহসান।

শুক্রবার ১৯শে এপ্রিল থেকে আবেদন গ্রহণ শুরু হবে। এ সেবা দেবে বাংলাদেশ সরকার অনুমোদিত ‘এক্সপ্যাট সার্ভিসেস লিমিটেড’ নামে একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠান। চলতি বছরের ৫ই জানুয়ারি রাজধানী কুয়ালালামপুরের সাউথগেট কমার্শিয়াল সেন্টারে মালয়েশিয়া প্রবাসী বাংলাদেশিদের নানামুখী সেবা নিয়ে যাত্রা শুরু করে প্রতিষ্ঠানটি।

হাইকমিশনার মো. শামিম আহসান বলেন, মালেয়শিয়ায় ই-পাসপোর্ট চালু হওয়ায় ডিজিটাল বাংলাদেশ আরও বেশি সার্থক হয়েছে। প্রবাসীদের সেবার ব্যাপারে সব সময় আমাদের সর্বোচ্চ প্রচেষ্টা থাকবে।

সচিব মো. আব্দুল্লাহ আল মাসুদ চৌধুরী বলেন, স্মার্ট বাংলাদেশ নির্মাণে ই-পাসপোর্ট, ই-গেইট ও মানসম্মত ইমিগ্রেশন পরিষেবার কোনো বিকল্প নেই।

ই-পাসপোর্ট প্রকল্প পরিচালক বিগ্রেডিয়ার জেনারেল মুহাম্মদ নুরুস ছালাম জানান, ই-পাসপোর্ট পৃথিবীর সর্বাধুনিক প্রযুক্তি। আপনারা ই-গেইট দিয়ে সহজেই ইমিগ্রেশন পার হতে পারবেন কোনো রকম ঝামেলা ছাড়াই। আগামী ১৯শে এপ্রিল শুক্রবার থেকে আবেদন গ্রহণ শুরু হবে।

এক্সপ্যাট সার্ভিসেস লিমিটেড মালয়েশিয়ায় বসবাসরত প্রবাসীদের পাসপোর্ট নবায়ন এবং বিদেশি নাগরিকদের ভিসা সার্ভিস প্রদান করবে। মালয়েশিয়ায় বসবাসরত প্রবাসী বাংলাদেশিদের সর্বোচ্চ সেবা প্রদানে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ এক্সপ্যাট সার্ভিসের মাধ্যমে অ্যাপয়েনমেন্ট নেয়া বাধ্যতামূলক করে বাংলাদেশ হাইকমিশন ই-পাসপোর্টের সরকারি ফি নির্ধারণ করেছে। যেখানে সাধারণ শ্রমিক ও শিক্ষার্থীদের ৪৮ পাতা ৫ বছর এবং ১০ বছর মেয়াদের পাসপোর্টের ফি যথাক্রমে ১৬৪ এবং ২৭৩ রিঙ্গিত এবং অন্যদিকে ৬৪ পাতার ৫ বছর ও ১০ বছর মেয়াদের সরকারি ফি যথাক্রমে ৮১৭ এবং ৯৫৩ রিঙ্গিত ধার্য করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *