Home » অন্যান্য » উড়ন্ত মেসি।

উড়ন্ত মেসি।

খেলা শুরু হতে না হতেই বিপদে ইন্টার মায়ামি। নিজেদের জালেই বল পাঠালেন ডিফেন্ডার ফ্র্যাঙ্কো নেগ্রি। তবে তাদের আছে লিওনেল মেসি নামের এক জাদুকর। দ্রুতই চিত্র বদলে দিলেন ম্যাচের। শুরুর ধাক্কা সামলে দারুণ জয় আদায় করে নিল ইন্টার মায়ামি।

রোববার সকালে মেজর লীগ সকারের ম্যাচে ন্যাশভিল এসসিকে ৩-১ গোলে হারায় ইন্টার মায়ামি। দলের তিনটি গোলেই অবদান মেসির। নিজে দুটি গোল করেন মায়ামি অধিনায়ক, তার কর্নারে মাথা ছুঁইয়ে বাকি গোলটি করেন সাবেক বার্সা সতীর্থ সার্জিও বুসকেটস। সাত গোল নিয়ে লীগের গোল স্কোরারদের তালিকায় এখন সবার ওপরে মেসি। তার অ্যাসিস্ট ছয়টি। ২০১৬ সালের পর প্রথমবার কোনো ফুটবলার মৌসুমের প্রথম ছয় ম্যাচেই গোল করতে পারলেন।

সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে এই মৌসুমে তার গোল এখন ৯টি, অ্যাসিস্ট ৮টি।
মায়ামির মাঠে ম্যাচের দ্বিতীয় মিনিটেই এগিয়ে যায় ন্যাশভিল। কর্নার থেকে বল ক্লিয়ার করতে গিয়ে নিজেদের জালে বল পাঠান নেগ্রি। ডাইভ দিয়ে চেষ্টা করেও ঠেকাতে পারেননি গোলকিপার ড্রেক ক্যালেন্ডার। ৯ মিনিট পরই সেই গোল শোধ করে দেয় মায়ামি। লুইস সুয়ারেজের বুদ্ধিদীপ্ত টোকা থেকে বল পেয়ে দারুণ গতিতে বক্সে ঢুকে এক ডিফেন্ডারকে ছিটকে দিয়ে গোলে শট নেন মেসি। ন্যাশভিলের গোলকিপার তা ফিরিয়ে দেয়। ফিরতি বলে সুয়ারেজ আবার পাস দেন মেসিকে। আর্জেন্টিনার বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়ক এবার জালে বল পাঠাতে ভুল করেননি। ৩৯তম মিনিটে মেসির মাপা কর্নার কিকে দারুণ হেড করে মায়ামিকে এগিয়ে নেন বুসকেটস। দুই দলই পরে আক্রমণ করে বেশ কিছু। কয়েক দফায় মায়ামিকে রক্ষা করেন গোলকিপার ক্যালেন্ডার। ৮১তম মিনিটে পেনাল্টি থেকে গোল করে দলের জয় নিশ্চিত করে দেন মেসি। মৌসুমে প্রথমবার লীগে টানা দুই ম্যাচ জিতলো ইন্টার মায়ামি।
জয়ের ম্যাচে অবশ্য একটা অস্বস্তি আছে কোচ টাটা মার্টিনোর দল মায়ামির। প্রথমার্ধের শেষ দিকে স্ট্রেচারে করে মাঠ ছাড়েন দিয়েগো গোমেজ। দলের গুরুত্বপূর্ণ এই মিডফিল্ডারের চোটের অবস্থা জানার অপেক্ষায় আছে এখন দল। এই জয়ের পর মেজর লীগ সকারের ইস্টার্ন কনফারেন্সে এখন ১০ ম্যাচে ১৮ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে ইন্টার মায়ামি। এক ম্যাচ কম খেলে ১৬ পয়েন্ট নিউ ইয়র্ক রেড বুলসের।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *