Home » অন্যান্য » মার্কিন হুঁশিয়ারি, প্রতিক্রিয়ায় যা বললেন জয়শঙ্কর

মার্কিন হুঁশিয়ারি, প্রতিক্রিয়ায় যা বললেন জয়শঙ্কর

ইরানের চাবাহার সমুদ্রবন্দর পরিচালনায় তেহরানের সঙ্গে নয়াদিল্লির চুক্তিটি মোটেও ভালোভাবে নেয়নি যুক্তরাষ্ট্র। চুক্তিটি ঘোষণার সাথে সাথে ভারতকে নিষেধাজ্ঞার হুঁশিয়ারি দিয়েছে মার্কিন প্রশাসন। এর একদিন পরেই মার্কিন হুঁশিয়ারির প্রতিক্রিয়া দিয়েছেন ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর। ইরানের সঙ্গে এই প্রকল্পটি দুই অঞ্চলের জনগণের জন্যই বেশ মঙ্গলজনক বলে জোর দিয়েছেন জয়শঙ্কর। তিনি বলেছেন, জনগণ এক্ষেত্রে কারো সংকীর্ণ দৃষ্টিভঙ্গি মেনে নেবে না।

বুধবার জয়শঙ্করের লেখা ‘হোয়াই ভারত ম্যাটার্স’ বইয়ের বাংলা সংস্করণ প্রকাশ অনুষ্ঠানে যুক্তরাষ্ট্রের হুঁশিয়ারির জবাব দেন।
অনলাইন এনডিটিভির খবরে বলা হয়েছে, যুক্তরাষ্ট্র নিজেই অতীতে চাবাহারের বৃহত্তর প্রাসঙ্গিকতার প্রশংসা করেছে বলে মন্তব্য করেছেন ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

মার্কিন হুঁশিয়ারি সম্পর্কে প্রশ্ন করা হলে জয়শঙ্কর বলেন, আমি তাদের মন্তব্য দেখেছি, তবে আমি মনে করি যোগাযোগ এবং এখানের জনগণের আশা-আকাঙ্খার কথা ভাবা উচিৎ। আমি মনে করি না কারো এ বিষয়ে সংকীর্ণ দৃষ্টিভঙ্গি রাখা উচিৎ।

তিনি আরো বলেন, তারা (যুক্তরাষ্ট্র) অতীতে কখনও এমন মন্তব্য প্রকাশ করেনি। আপনারা যদি চাবাহার বন্দরের প্রতি যুক্তরাষ্ট্রের নিজস্ব মনোভাব লক্ষ্য করেন দেখবেন তারা এর আগে চাবাহারের বৃহত্তর প্রাসঙ্গিকতা নিয়ে প্রশংসা করেছে।

সোমবার ইরানের চাবাহার সমুদ্রবন্দর পরিচালনার জন্য ১০ বছরের একটি চুক্তি করেছে নয়াদিল্লি-তেহরান। এর কয়েক ঘণ্টার মাথায় যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র দপ্তরের উপমুখপাত্র বেদান্ত প্যাটেল হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেছেন, ইরানের সঙ্গে কোনো দেশ ব্যবসায়িক চুক্তিতে গেলে তারা সম্ভাব্য নিষেধাজ্ঞার মুখে পড়তে পারে। তিনি আরো বলেছেন, ইরানের ওপর যুক্তরাষ্ট্রের নিষেধাজ্ঞা এখনো কার্যকর। এসব নিষেধাজ্ঞা আরও জোরদার করা হবে।

নাম উল্লেখ না করে ভারতকে সতর্ক করে বেদান্ত বলেন, যারাই ইরানের সঙ্গে বাণিজ্যিক চুক্তি করবে, তাদের মনে রাখা উচিত যে তারা নিজেরাই নিজেদের ওপর নিষেধাজ্ঞা পড়ার পথ খুলে দিচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *